fbpx

Shop

Allergy ( এলার্জি বড়ি )

১ মাসের কোর্স ( ১ ফাইল )

750.00৳ 

প্রোডাক্টের (এলার্জি বড়ি ) মূল্য ১ বক্স / ফাইল ৭৫০/- এবং
🛒 কুরিয়ার (ডেলিভারি) চার্জ : গাজীপুর ৬০/- , ঢাকা সিটি ৮০/- , এবং সারা বাংলাদেশ ১০০/- টাকা ৷
✅ অর্ডার কনফার্ম করতে শুধু ডেলিভারি চার্জ অগ্রিম দিতে হয় ৷
আর প্রোডাক্ট এর দাম প্রোডাক্ট হাতে বুঝে পাবার পরে দিবেন ৷
✅ অর্ডার কনফার্ম করতে এবং ফ্রি পরামর্শের জন্য : ☎️01303380644 / 01841535831/কল করুন অথবা নাম, ফুল ঠিকানা ও মোবাইল নং SMS করুন।
বিঃ দ্রঃ রোগব্যাধি সারানোর একমাত্র মালিক মহান আল্লাহ রব্বুল আলামিন … আমরা শুধুমাত্র উৎকৃষ্ট মানের দুর্লভ কিছু ভেষজ উপাদান ব্যবহার করে সঠিক ইউনানী ফর্মুলা অনুযায়ী প্রোডাক্ট তৈরি করে থাকি ৷
alergy

750.00৳ 

Add to cart
Buy Now
অ্যালার্জি কেন হয়, কীভাবে এড়ানো যায়
অ্যালার্জি একটি জটিল রোগ। শিশু থেকে বৃদ্ধ— সব বয়সি মানুষ এই রোগে ভুগে থাকেন। অ্যালার্জিতে হাঁচি থেকে শুরু করে খাদ্য এবং ওষুধের মারাত্মক প্রতিক্রিয়া ও শ্বাসকষ্ট হতে পারে।
কারও কারও ক্ষেত্রে অ্যালার্জি সামান্য অসুবিধা সৃষ্টি করে। আবার কারও ক্ষেত্রে জীবনকে বিষিয়ে দেয়।
হঠাৎ করে হাঁচি এবং পরে শ্বাসকষ্ট হলে অথবা ফুলের গন্ধ নিচ্ছেন বা গরুর মাংস, চিংড়ি, ইলিশ, গরুর দুধ, বেগুন খেলেই শুরু হলো গা চুলকানি বা চামড়ায় লাল লাল চাকা হয়ে ফুলে ওঠা। এগুলো হলে আপনার অ্যালার্জি আছে ধরে নিতে হবে।
অ্যালার্জি কী? কেন হয় এবং কীভাবে এড়ানো যায়?
প্রত্যেক মানুষের শরীরে এক একটি প্রতিরোধ ব্যবস্থা বা ইমিউন সিস্টেম থাকে, কোনো কারণে এই ইমিউন সিস্টেমে গোলযোগ দেখা দিলে তখনই অ্যালার্জির বহিঃপ্রকাশ ঘটে।
অ্যালার্জি সৃষ্টিকারী বহিরাগত বস্তুগুলোকে অ্যালার্জি উৎপাদক বা অ্যালার্জেন বলা হয়।
* অ্যালার্জিজনিত সর্দি বা অ্যালার্জিক রাইনাইটিস
এর উপসর্গ হচ্ছে— অনবরত হাঁচি, নাক চুলকানো, নাক দিয়ে পানি পড়া বা নাক বন্ধ হয়ে যাওয়া, কারও কারও চোখ দিয়েও পানি পড়ে এবং চোখ লাল হয়ে যায়।
অ্যালার্জিক রাইনাইটিস দুই ধরনের
* সিজনাল অ্যালার্জিক রাইনাইটিস : বছরের একটি নির্দিষ্ট সময়ে অ্যালার্জিক রাইনাইটিস হলে একে সিজনাল অ্যালার্জিক রাইনাইটিস বলা হয়।
* পেরিনিয়াল অ্যালার্জিক রাইনাইটিস : সারা বছর ধরে অ্যালার্জিক রাইনাইটিস হলে একে পেরিনিয়াল অ্যালার্জিক রাইনাইটিস বলা হয়।
লক্ষণ ও উপসর্গ
সিজনাল অ্যালার্জিক রাইনাইটিস
* ঘন ঘন হাঁচি
* নাক দিয়ে পানি পড়া
* নাসারন্ধ্র বন্ধ হয়ে যাওয়া
অন্যান্য উপসর্গ
* চোখ দিয়ে পানি পড়া
পেরিনিয়াল অ্যালার্জিক রাইনাইটিস
পেরিনিয়াল অ্যালার্জিক রাইনাইটিসের উপসর্গগুলো সিজনাল অ্যালার্জিক রাইনাইটিসের মতো। কিন্তু এ ক্ষেত্রে উপসর্গগুলোর তীব্রতা কম হয় এবং স্থায়িত্বকাল বেশি হয়।
অ্যাজমা বা হাঁপানি রোগের প্রধান উপসর্গ বা লক্ষণ
* বুকের ভেতর বাঁশির মতো সাঁই সাঁই আওয়াজ
* শ্বাস নিতে ও ছাড়তে কষ্ট
* দম খাটো অর্থাৎ ফুসফুস ভরে দম নিতে না পারা
* ঘন ঘন কাশি
* বুকে আঁটসাঁট বা দম বন্ধ ভাব
* রাতে ঘুম থেকে উঠে বসে থাকা
আর্টিকেরিয়া
আর্টিকেরিয়ার ফলে ত্বকে লালচে ফোলা ফোলা হয় এবং ভীষণ চুলকায়। ত্বকের গভীর স্তরে হলে হাত-পা ফুলে যেতে পারে। আর্টিকেরিয়ার ফলে সৃষ্টি ফোলা অংশগুলো মাত্র কয়েক ঘণ্টা স্থায়ী থাকে; কিন্তু কখনো কখনো বারবার হয়। যে কোনো বয়সে আর্টিকেরিয়া হতে পারে। স্বল্পস্থায়ী আর্টিকেরিয়া বাচ্চাদের মধ্যে এবং দীর্ঘস্থায়ী আর্টিকেরিয়া বড়দের মধ্যে দেখা যায়।
লক্ষণ ও উপসর্গ
* ত্বকে ছোট ছোট ফোসকা পড়ে
* ফোসকাগুলো ভেঙে যায়
* চুয়ে চুয়ে পানি পড়ে
* ত্বকের বহিরাবরণ উঠে যায়
* ত্বক লালচে হয় এবং চুলকায়
* চামড়া ফেটে আঁশটে হয়
অ্যালার্জিক কনজাংটাইভাইটিস
চোখে চুলকানো ও চোখ লাল হয়ে যায়।
0
X